লিপজিগের বিপক্ষে বায়ার্নের বড় জয়

স্পোর্টস ডেস্ক
১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বিকাল ৬:৩২ সময়

লিপজিগের রেড বুল এরিনাতে ১২ মিনিটে লিওয়ানদোস্কির পেনাল্টিতে এগিয়ে যায় বেভারিয়ান্সরা। বিরতির পরপরই ১৮ বছর বয়সী জামাল মুসিয়ালা ও লেরয় সানের দ্রুতই দুই গোলে ৩-০ গোলের লিড পায় সফরকারীরা। 

মিডফিল্ডার কোনার্ড লেমিয়ারের দুর্দান্ত গোলে স্বাগতিকরা এক গোল পরিশোধ করলেও তা পরাজয় এড়ানোর জন্য যথেষ্ঠ ছিলনা। লিওয়ানদোস্কির বদলী হিসেবে খেলতে নামা এরিক ম্যাক্সিম চুপো-মোটিং ইনজুরি টাইমে বায়ার্নের হয়ে আরো এক গোল করেছেন ।

দুই বছর আগে লিপজিগের দায়িত্ব ছেড়ে এবারের মৌসুমে মিউনিখের কোচ হিসেবে কাজ শুরু করেছেন জুলিয়ান নাগেলসম্যান। 

মঙ্গলবার ক্যাম্প ন্যুতে বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মিশন শুরু করতে যাচ্ছে বায়ার্ন। 

ম্যাচ শেষে বায়ার্ন কোচ বলেছেন, আমি সব সময়ই এখানে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। আজও তার ব্যতিক্রম হয়নি। সত্যিকার অর্থেই আজ আমরা ভাল ফুটবল খেলেছি। কিন্তু এর থেকেও ভাল খেলার সামর্থ্য আমাদের আছে।

লিপজিগের মার্কিন কোচ হেসি মার্শ বলেছেন ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচকে সামনে রেখে যত দ্রুত সম্ভব নিজেদের ভুলগুলো শুধরে নিতে হবে। 

মার্শ বলেন, বায়ার্নের বিপক্ষে খেলাটা সবসময়ই কঠিন। আমাদের দ্রুত এই পরাজয় থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এ পর্যন্ত লিগে চার ম্যাচের তিনটিতেই পরাজিত হয়েছে লিপজিগ। 

মার্শ বলেন, এভাবে আমরা লিগ শুরু করতে চাইনি। আমাদের শান্ত থেকে নিজেদের দায়িত্বগুলো পালন করতে হবে। প্রতিদিন অনুশীলনে ছেলেরা ভালই করছে। কিন্তু ম্যাচের ফলাফলে তার প্রতিফলন ঘটছে না।

লিপজিগ মিডফিল্ডার কেভিন কামপালের হ্যান্ডবলে প্রাপ্ত পেনাল্টি থেকে ১২ মিনিটে বেভারিয়ান্সদের এগিয়ে দেন লিওয়ানদোস্কি। বিরতির পর ৪৭ মিনিটে সার্জি গ্যানাব্রির পরিবর্তে মাঠে নামা মুসিয়াল আলফোনসো ডেভিসের পাস থেকে কার্লিং শটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন। 

আন্দ্রে সিলভার একটি গোল অফসাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায়। ৫৪ মিনিটে মুসিয়ালার ক্রস থেকে সানের ভলিতে ৩-০ ব্যবধানে লিড পায় বায়ার্ন। ৫৮ মিনিটে লেমিয়ারের দুরপাল্লার শটটি আটকানোর সাধ্য ছিলনা ম্যানুয়েল নয়্যারের। ইনজুরি টাইমে চুপো-মোটিংয়ের গোলে বড় ব্যবধানের জয় নিশ্চিত হয় বায়ার্নের।

পিয়াল/আওয়াজবিডি

পাকিস্তানকে নজরে রাখবে কোয়াড: ভারত

আওয়াজবিডি ডেস্ক
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, দুপুর ৩:২৪ সময়

মার্কিন প্রেসিডেন্টের কার্যালয় হোয়াইট হাউজে গতকাল শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, জাপান ও ভারতকে নিয়ে গঠিত কোয়াডের বৈঠকে অংশ নেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখানে তিনি তালেবান–নিয়ন্ত্রিত আফগানিস্তান নিয়ে ভারতের উদ্বেগের বিষয়টি তুলে ধরেন।

বৈঠক শেষে হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন, আফগানিস্তান পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের ভূমিকা এবং সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে দেশটির অবস্থানের ওপর সতর্ক নজরদারি রাখতে হবে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আফগানিস্তানে নানা সংকটে ভূমিকা রেখেছে পাকিস্তান। এ বিষয়গুলোর ওপর নজর রাখবে কোয়াড।

আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাসদস্যদের চূড়ান্ত ধাপে প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের পর গত মাসের ১৫ তারিখ দেশটির ক্ষমতা নিজেদের দখলে নেয় তালেবান। সে সময়ই বিলুপ্তি ঘটে পশ্চিমাসমর্থিত আফগান সরকারের। তৎকালীন আফগান সরকারের সঙ্গে বেশ সুসম্পর্ক ছিল ভারতের।

তালেবানের সঙ্গে পাকিস্তানের ঘনিষ্ঠতা রয়েছে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তালেবানের প্রথম মেয়াদের সরকারকে হাতে গোনা যে কটি দেশ স্বীকৃতি দেয়, তাদের মধ্যে ছিল পাকিস্তান। সংগঠনটিকে নানাভাবে সহায়তা করার অভিযোগ রয়েছে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের বিরুদ্ধে। তবে তালেবানের বর্তমান অন্তর্বর্তীকালীন সরকারকে এখনো স্বীকৃতি দেয়নি পাকিস্তান।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি