কুয়াকাটায় ঢেউয়ের তোড়ে ট্রলারডুবি, ১৫ জন উদ্ধার

আওয়াজবিডি ডেস্ক
১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, দুপুর ৩:৩৯ সময়

ডুবে যাওয়া ট্রলারটি পটুয়াখালী জেলার মহিপুর থানার ধুলাসার ইউনিয়নের গঙ্গামতি এলাকার আব্বাস বিশ্বাসের।

কুয়াকাটা বেড়াতে আসা পর্যটক প্রত্যক্ষদর্শী আবির হাসান বলেন, আমরা সমুদ্রে গোসল করছিলাম। এমন সময় ঢেউয়ের তোড়ে মাছ ধরার ট্রলারটি উল্টে যায়। তাৎক্ষণিক সৈকতে থাকা দুটি ওয়াটার বাইক গিয়ে জেলেদের উদ্ধার করে।

ডুবে যাওয়া ট্রলারের মাঝি আলী হোসেন বলেন, শুক্রবার গভীর সমুদ্রে মাছ শিকার করতে যাই। এরপর সমুদ্র উত্তাল হলে মাছ ধরা বন্ধ রাখি। পায়রা বন্দর মোহনা সংলগ্ন হাইরের চরে ট্রলার নোঙ্গর করি। রোববার সকাল থেকে সমুদ্র আরও উত্তাল হয়। সেখানে টিকতে না পেরে মৎস্য বন্দর আলিপুর মহিপুর খাপড়াভাঙ্গা নদীতে নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য রওনা দেই। কুয়াকাটা সৈকতের জিরো পয়েন্ট সংলগ্ন সমুদ্রে পৌঁছালে ঢেউয়ের তোড়ে ট্রলার ডুবে যায়।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি

রাজ আমাকে জোর করে চুমু খেয়েছিল: শার্লিন

বিনোদন ডেস্ক
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, দুপুর ২:২৭ সময়

রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে যারা অভিযোগ তুলেছিলেন, তাদের একজন শার্লিন চোপড়া। এই মডেল ও অভিনেত্রী বিস্ফোরক সব তথ্য প্রকাশ্যে আনেন। তার বয়ানও গুরুত্বের সঙ্গে রেকর্ড করেছে মুম্বাই পুলিশ।

এদিকে রাজের জামিন পাওয়ার পর শিল্পা শেঠিকে খোঁচা দিয়েছেন শার্লিন। টুইট করে তিনি বলেছেন, টিভিতে আপনি অনেক কিছুই করেন, বলেন। শিল্পীকে প্রণাম করতেও দেখা যায় আপনাকে। মাঝে মধ্যে একটু টিভির পর্দা থেকে বেরিয়ে কিছু একটা করুন। রাজপ্রাসাদ থেকে বেরিয়ে বাইরের জগতটার দিকে তাকান। সেলিব্রিটির মুখোশ খুলে মানুষকে সাহায্য করুন। দেখবেন আপনার সামনে সবাই মাথা নোয়াবে!

এর আগে রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুলেছিলেন শার্লিন চোপড়া। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ‘২০১৯ সালের শুরুর দিকে আমার সহকারীকে ফোন করেন রাজ। রাজ আমার নামে একটি অ্যাপ তৈরি করার কথা বলেছিলেন। তারপর হঠাত্‍ আমার বাড়িতে এসে হাজির হন। রাজের সঙ্গে এই অ্যাপ নিয়ে তর্কও হয়েছিল। এরপরই হঠাত্‍ আমাকে জোর করে চুমু খেতে শুরু করেন রাজ! আমি বাধা দিলেও তিনি আমার কথা শোনেননি।’

শুধু তাই নয়, শিল্পার সঙ্গে রাজের সম্পর্ক ছিল না বলেও জানিয়েছিলেন শার্লিন। সেই দুঃখ তার কাছেই নাকি প্রকাশ করতেন রাজ।

শোনা যায়, রাজের পর্নভিডিওতে অভিনয় করেছিলেন শার্লিন। একেকটি প্রজেক্টের জন্য রাজের কাছ থেকে ৩০ লাখ রুপি করে পেতেন এই অভিনেত্রী। এরকম ১৫ থেকে ২০টি প্রজেক্টে কাজ করেছিলেন বলে জানা যায়।

পিএলএম/আওয়াজবিডি